Registration


 আরচ্যারী ফেডারেশন

জাজেস নিবন্ধন নীতিমালা-২০১৪

      ১উদ্দেশ্যবাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশন কর্তৃক জাজেস নিবন্ধন নীতিমালা প্রণয়ন করা

       ২নীতির নামকরণজাজেস নিবন্ধন নীতিমালা- ২০১৪ (Judges Accreditation Policy-2014) নামে পরিচিত হবে

      ৩নীতিমালার আওতার পরিসরবাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের আওতাধীন সমগ্র বাংলাদেশ ব্যাপী এর পরিসর/সীমানা থাকবে

       ৪নীতিমালার আওতাধীন ব্যক্তিবর্গবাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের অধীনে নিবন্ধন জাজগণ অন্তর্ভূক্ত হবে

      ৫নীতিমালা পরিবর্তণ পদ্ধতিঃ এই জাজেস নিবন্ধন নীতিমালা ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন ও

      পরিবর্তন করা যাবে ।

      ৬সংগা সমূহ:

.১ "কমিটি" বলতে বাংলাদেশ আরচ্যারী ­ফেডারেশন কর্তৃক দায়িত্বপ্রাপ্তজাজেস, কোচেস ও আয়োজক সমন্বয় কমিটি'কে বুঝাবে

.২ "সেমিনার বা কোর্স" বলতে বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশন কর্তৃক বাৎসরিক ইভেন্ট ক্যালেন্ডার মোতাবেক আয়োজিত জাজেস সেমিনার বা কোর্স সমূহকে বুঝাবে

.৩ "প্রার্থির যোগ্যতা" বলতে বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের পক্ষ হতে আয়োজিত জাজেস সেমিনার বা কোর্সে অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে জাজেস, কোচেস ও আয়োজক কমিটি কর্তৃক নির্ধারিত প্রার্থির যোগ্যতাকে বুঝাবে এ ক্ষেত্রে যোগ্যতা হিসেবে প্রার্থিকে অবশ্যই সুশিক্ষিত হতে হবে, ইংরেজী ভাষায়   কথা বলতে লিখতে জানতে হবে, আরচ্যারী খেলা সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে এবং শারীরিকমানুষিকভাবে সুস্থ হতে হবে

          .৪ "সেমিনারে কৃতকার্য" বলতে বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিত সেমিনার শেষে প্রনীত পরীক্ষা মানদন্ড অনুসরণে

           কৃতকার্য ব্যক্তিকে বুঝাবে

.  "ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজ" বলতে বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের আওতায় শর্তানুযায়ী প্রাথমিকভাবে নিবন্ধনকৃত জাজকে বুঝাবে ।

.৬ "ন্যাশনাল জাজ" বলতে প্রাথমিকভাবে নিবন্ধনকৃত ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজগণ বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের আওতায় নির্ধারিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতা বা কার্যক্রমে নিয়মতান্ত্রিকভাবে নিষ্ঠার সাথে  দুই বছরকাল (কমপক্ষে ৮টি প্রতিযোগিতায় জাজ হিসাবে অংশগ্রহণ করলে) এবং বাৎসরিক এ্যাক্রেডিটেড পরীক্ষায় কৃতকার্য জাজদের বুঝাবে

           .  "কন্টিনেন্টাল জাজ" বলতে ওয়াল্ড আরচ্যারী এশিয়া ফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিত আরচ্যারী জাজেস সেমিনারে অংশগহণ পূর্বক

           কৃতকার্য হলে      তাকে বুঝাবে

.৮ "ফিটা ক্যান্ডিডেট জাজ" বলতে ওয়ার্ল্ড আরচ্যারী কর্তৃক আয়োজিত ফিটা ক্যান্ডিডেট জাজেস সেমিনারে অংশগ্রহণ পূর্বক কৃতকার্য হলে তাকে বুঝাবে

.৯ "ফিটা জাজ" বলতে ওয়ার্ল্ড আরচ্যারী কর্তৃক আয়োজিত ফিটা জাজেস সেমিনারে অংশগ্রহণ পূর্বক কৃতকার্য হলে তাকে বুঝাবে

      ৭বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের অধীনেন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজনিবন্ধন পদ্ধতি:

. বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিতআরচ্যারী জাজেস সেমিনার’- কৃতকার্য এবং আগ্রহী জাজগণন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজহিসেবে নিবন্ধনের জন্য Archery Judge Accreditation Form BAF-F0003 (সংযুক্ত)   আবেদন করতে পারবেন উল্লেখ্য যে, উপরোক্ত সেমিনার শেষে আগ্রহী প্রার্থীকে কমপক্ষে ১টি প্রতিযোগিতায় স্বেচ্ছাসেবক হিসাবে সফলভাবে অংশগ্রহণ করতে হবে

. আবেদনকৃত জাজগণের আবেদন বিএএফ-এর স্থায়ী কমিটিজাজেস, কোচেস এন্ড অর্গানাইজার্স     কো-অর্ডিনেশন কমিটিকর্তৃক যাচাই-বাছাই করা হবে এক্ষেত্রে কমিটি আবেদনকারীর সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যোগ্যতা বিবেচনার সাথে সাথে প্রয়োজনে ব্যক্তিগত শিক্ষাগত যোগ্যতা বিবেচনায় আনবে প্রয়োজনে পূনঃ পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিবেন

      ৮ন্যাশনাল জাজনিবন্ধন পদ্ধতি:  নিবন্ধিত ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজগন ফেডারেশনের আওতায় বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় দুই বছর জাজ

      হিসাবে (কমপক্ষে ৮টি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ) অভিজ্ঞতা অর্জনের পর ‘ন্যাশনাল জাজ’ হওয়ার জন্য আবেদন করতে পরবেন । সে ক্ষেত্রে

     ফেডারেশনের বাৎসরিক ক্রীড়াপঞ্জীতে নির্ধারিত তারিখের পরীক্ষায় কৃতকার্য এবং দুবছরকাল ফেডারেশনের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায়

      পারফরমেন্সের ভিত্তিতে ন্যাশনাল জাজ হিসেবে ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজ নির্বাচন করা হবে 

      ৯কন্টিনেন্টাল জাজনিবন্ধন পদ্ধতি:  ন্যাশনাল জাজদের মধ্য হতে জ্যেষ্ঠতা/যোগ্যতার ভিত্তিতে পরবর্তীতে ওর্য়াল্ড আরচ্যারী এশিয়া

      ফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিতকন্টিনেন্টাল জাজেস সেমিনারেঅংশগ্রহণ করার জন্য মনোনীত হতে পারবেন উক্ত সেমিনারে কৃতকার্য

      জাজগণ কন্টিনেন্টাল জাজ হিসেবে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন

      ১০ফিটা কেন্ডিডেট জাজনিবন্ধন পদ্ধতি:  কন্টিনেন্টাল জাজগণ জ্যেষ্ঠতা/যোগ্যতার ভিত্তিতে ফিটা কর্তৃক আয়োজিতফিটা কেন্ডিডেট

      জাজপরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে কৃতকার্যরাফিটা কেন্ডিডেট জাজহিসেবে নিবন্ধনের আবেদন করতে পারবেন  

      ১১ফিটা জাজনিবন্ধন পদ্ধতি:  পরবর্তী সর্বোচ্চ জাজ টাইটেলফিটা জাজস্বীকৃতি পেতে ওয়াল্ড আরচ্যারী কর্তৃক ঘোষিত নিয়ম অনুসরন

      করে ফিটা জাজসেমিনারে অংশগ্রহণ পূর্বক পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে জ্যেষ্ঠতা/যোগ্য কেন্ডিডেট জাজরা

      অগ্রাধিকার পাবেন উক্ত কোর্সে কৃতকার্য জাজগন ফিটা জাজ হিসেবে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন

      ১২নিবন্ধন ফি বিষয়কঃ   আরচ্যারী জাজেজ নিবন্ধনের ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন প্রেক্ষাপট হতে পারে, যেমন প্রাথমিক নিবন্ধন (Primary), পরবর্তী

      ধাপে উন্নয়ন (Upgradation), বাৎসরিক / নবায়ন (Renew) এবং অন্যান্য (Other)  ইত্যাদি এছাড়াও নিবন্ধণের জন্য নির্ধারিত "ফি’- তিনটি খাত

      হবে, যেমনঃ নিবন্ধন ফি, নিয়মিত বাৎসরিক / নবায়ন ফি এবং আইডি কার্ড ফি উল্লেখ্য যে, বাৎসরিক বা নবায়ন ফি আদায়ের চক্র“ (Cycle)

      হবে জানুয়ারি হতে ডিসেম্বর মাস নবায়ন ফি জানুয়ারি মাসে প্রদান করতে হবে, অন্যথায় প্রতি বছরের জন্য নির্ধারিত ফি ৫০% অতিরিক্ত

      হারে "লেট ফিপ্রদান করতে হবে আপাততঃ  ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজ স্তরের আইডি কার্ড স্বল্পমূল্যে ফেডারেশন হতে লেমিনেটেড করে

      প্রদান করা হবে অন্যান্য স্তরের আইডি কার্ড আউট সোর্সিং করে প্রস্তুত করা হবে বিভিন্ন ফি হার নিম্নের টেবিল- মোতাবেক হবে

টেবিল- (বিভিন্ন ফি হার)

জাজেজ স্তর

নিবন্ধন ফি

বাৎসরিক / নবায়ন ফি

আইডি কার্ড ফি

ন্যাশনাল ক্যান্ডিডেট জাজ

১০০/-

১০০/-

৫০/-

ন্যাশনাল জাজ

৩০০/-

১৫০/-

২০০/-

কন্টিনেন্টাল জাজ

৪০০/-

২০০/-

২০০/-

ফিটা ক্যান্ডিডেট জাজ

৫০০/-

২৫০/-

২০০/-

ফিটা জাজ

৬০০/-

৩০০/-

২০০/-

 সকল ফি আবেদন পত্রের সাথে একটি পে-অর্ডারের মাধ্যমে জমা করবে

 

১২. আবেদনকারীর আবেদন সংশ্লিষ্ট কমিটি কর্তৃক অনুমোদন লাভ করলে ফেডারেশন কর্তৃক প্রনীত নীতিমালা অনুসরন করে আবেদনকারী নিবন্ধনের আওতায় আসতে পারবে এক্ষেত্রে সদস্য আইডি কার্ড তার জন্য লাইসেন্স হিসাবে পরিগণিত হবে কোন কারণে আবেদনকারীর আবেদন গৃহীত না হলে নিবন্ধন ফি বাদে অন্যান্য সকল ফি, যেমনঃ বাৎসরিক ফি আইডি কার্ড ফি ফেরত প্রদান করা হবে

১২. আগ্রহী আবেদনকারীকে আবেদনের জন্য ফেডারেশনের ওয়েব সাইট বা কার্যালয় হতে আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে । অথবা ফেডারেশনের ওয়েবসাইট হতেও ডাউন লোড করা যাবে ।

১২. নিবন্ধনকৃত আরচ্যারী জাজেজদের আইডি কার্ডে ছবিসহ নাম বাংলা ইংরেজীতে, জন্ম তারিখ ইংরেজীতে, অক্ষরের  স্তরের কোড, সংখ্যার নিবন্ধন নম্বর ইংরেজীতে (অপরিবর্তনীয়),  ব্লাড গ্রুপ ইংরেজীতে, ফটো, ইস্যুর তারিখ এবং ইস্যু কর্তৃপক্ষের স্বাক্ষর উল্লেখ থাকবে

      ১৩জাজদের মান উন্নয়ন পদ্ধতি:  সকল স্তরের জাজদের মান উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রতি বছর ফেডারেশন কর্তৃক আয়োজিত জাজেস

      রিফ্রেসার্স কোর্সে অংশগ্রহণ করতে হবে এবং কোর্স শেষে এ্যাক্রেডিটেড পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হবে পরীক্ষার ফলাফল কৃতকর্মের

      যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রতি বছরের স্তর ভিত্তিক জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণ করা হবে কোচদের দেশীয় আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ব্যয় নিজ

      ব্যবস্থাপনায় সম্পন্ন করতে হবে

      ১৪নির্ধারিত জাজদের নিয়োগ/ব্যবহারের পদ্ধতিঃ

১৪. ফেডারেশন আওতাধীন সকল প্রতিযোগিতায় পরিচালনা একমাত্র নিবদ্ধনকৃত জাজদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে ।

১৪. জাজদের সম্মানী প্রতিযোগিতার ক্যাটাগরী এবং ভিন্ন ভিন্ন জাজ স্তর অনুযায়ী প্রদান করা হবে, যা ফেডারেশন কর্তৃক অনুমোদিত হবে

১৪. এছাড়া প্রতিটি প্রতিযোগিতার রেজাল্ট ক্র ফিল্ড ক্র নিবন্ধিত জাজদের মাঝ হতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হবে

১৪. কমিটি পরিচালনা এবং বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করার সুবিধার্থে নিবন্ধিত জাজগনকে দেশীয় আন্তর্জাতিক যে কোন প্রতিযোগিতা পরিচালনার সম্মানী হতে পূর্ব ঘোষিত হারে অর্থ ফেডারেশন বরাবর প্রদান করতে হবে ।

১৪. সকল স্তরের জাজদের ব্যক্তিগত নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনার তথ্য সংগৃহীত রাখার জন্য ডাটা বেজ ব্যবহার করা যেতে পারে নিবন্ধন আবেদন ফরম হতে প্রাপ্ত তথ্য ডাটাবেজকে সমৃদ্ধ করবে

১৪. ফেডারেশন কর্তৃক জাজদের জন্য প্রনীত নীতিমালা নিবন্ধিত সকল জাজদের উপর বর্তাবে

      ১৫ফেডারেশন কর্তৃক শাস্তিরবিধান:

          ১৫. বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশন কর্তৃক প্রনীত নীতিমালা ভঙ্গকারী বা অমান্যকারী কোন  জাজ পরবর্তীতে ফেডারেশনের নিয়মিত 

          জাজ হিসাবে নিবন্ধন হারাবে

১৫. বাৎসরিক ফি নিয়মিত প্রদান না করলে বা নিয়মিত ফেডারেশন কর্তৃক প্রদত্ত এ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন না করলে তার নিবন্ধন বাতিল বলে গণ্য হবে

I agree with terms and conditions

Address

Moulana Bhashani Hockey Stadium (1st Floor), Dhaka-1000, Bangladesh
Phone: +8802-7116882, FAX: +8802-9557433, Email: info@archery.org.bd
Scroll To Top